নিশিথীনি – লক্ষীশ্রী বন্দোপাধ্যায়

নিশিথীনি – লক্ষীশ্রী বন্দোপাধ্যায়

আমি রাতজাগা এক পাখী
হালকা নরম অন্ধকারে চাই না কোনো সাথী।
আমি স্তিমিত দীপের বাতি
সূর্যের তাপ সয় না আমার
রজনীগন্ধা ডাকে বারবার
আমি নিবিড় গভীর কান্নার ভার
চাঁদের ডুবতি স্নেহের আলোয়
করি শুধু মাতামাতি।

আমি রাতজাগা এক পাখী।।
কখনো পারিনি জাগাতে আমি
সূর্য শিখর বাতি।
রুদ্র ভীষণ তাপের প্রহরে
নির্মম এই আলোর আঁধারে
চাইনি বাঁচিতে কখনো আমি
জ্বলন্ত এই মৃত্যুপ্রহারে
শুধু খুঁজেছি নিশিভোলা এক প্রিয় সুজন সাথী।

আমি রাত জাগা এক পাখী ।।
নিশিপদ্ম আমার শান্তি
প্রভাতে উঠিনা জাগি
আমার চাঁদনী রাতের ঘুমে
ফুটেছে তারা বাগানে বনে
ফুটেছে শিউলি, জুইঁ আর বেলী
গেয়েছে সুরেলা পাখী।
রুপোলি সেই আলো ছায়ায়
আমি রাতজাগা এক পাখী।।

অরুণ উদয়ে জ্বলে উঠেছে
বুকভরা সব ক্রন্দন
সারা পৃথিবীর কঠিন আলোয়
থেমে গেছে সব স্পন্দন
চেতনায় শুধু জেগে আছে
এক কঠোর, শুষ্ক বাঁধন
শান্ত করি প্রাণের আবেশ
চোখ মেলে দেখি ফাঁকি।
আশ্রয় কারো দেখিতে না পাই
সূর্য শিখর তীব্র জ্বালায়
রইলো না কিছু বাকী।
তাই আমি এই গহন রাতে
সুখী রাত জাগা পাখি।।

Leave a Reply